Google Ads

ফের লকডাউন কি থাকবে ,নাকি তুলে দেওয়া হবে।

ফের লকডাউন কি থাকবে ,নাকি তুলে দেওয়া হবে।


নিউদিল্লী,27 এপ্রিল: আজ 27 এপ্রিল এখন অব্দি বিশ্বে করোনা থাবা বসিয়েছে 29 লক্ষ 92 হাজার 262 জনের ওপর এবং প্রাণ নিয়েছে 2 লক্ষ 6 হাজার 915 জনের, ভারতে  থাবা বসিয়েছে 26 হাজার 917 জনের ওপর প্রাণ নিয়েছে 826 জনের এবং পশ্চিমবঙ্গে আক্রান্ত সংখ্যা 611 এবং মৃত্যু সংখ্যা 18,
 এমন অবস্থায় লকডাউন কি বাড়ানো হবে? নাকি তুলে দেওয়া হবে? এ নিয়ে মানুষের মনে জাগ্রত হয়েছে নানা জল্পনা কল্পনা। একদিকে অর্থনৈতিক টানাপোড়েন অন্যদিকে করুণার মৃত্যুভয় এই দুই বিপরীতমুখী অবস্থানের মধ্যে মানুষ নিজেকে টিকিয়ে রাখতে হিমশিম খাচ্ছে। সমস্ত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের নিয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে বসছেন। সেখানে একাধিক রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে লকডাউন এর গতিবিধি নিয়ে আলোচনা করবেন।
 বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হঠাৎ করে লকডাউন তোলার পক্ষে নন। সর্বভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমকে তিনি জানিয়েছেন 4 মে এরপর আরো দু সপ্তাহ লকডাউন রাখা উচিত এবং সেটা ধাপে ধাপে তোলা উচিত বলে তিনি মনে করেন। দিল্লির সরকারও লকডাউন তোলার পক্ষে নন উনি লকডাউন কে আরো দীর্ঘায়িত করার পক্ষে জোরালো সাওয়াল করেছেন। 
  3 মে এর পর হটস্পট এলাকাগুলিতে লকডাউন চালিয়ে যাওয়ার পক্ষে দাবি জানিয়েছেন মহারাষ্ট্র, মধ্যপ্রদেশ, পশ্চিমবঙ্গ, পাঞ্জাব ও উড়িষ্যা ।এছাড়াও আরও ছটি রাজ্য গুজরাট, অন্ধ্র প্রদেশ, তামিলনাড়ু, হরিয়ানা, হিমাচল প্রদেশ ও কর্ণাটক এই রাজ্যগুলি কেন্দ্রীয় নির্দেশনা অনুসরণ করবে বলে জানিয়েছে। অপরদিকে সোমবার বিভিন্ন রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ভিডিও কনফারেন্স করার পর এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে বলে জানিয়েছে অসম, কেরালা ও বিহার।
 সর্বভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন যে একজন সাধারণ নাগরিক এবং তৃণমূল নেত্রী হিসেবে আমি চাই লকডাউন থাকুক। তার মতে 4 মে থেকে শুরু হওয়া সপ্তাহে 25% প্রত্যাহার করা হোক, আগামী 4 মের পরে দ্বিতীয় সপ্তাহে 50% পুনরায় খুলে দেওয়া হোক, আরো চার সপ্তাহ পরে সম্পূর্ণ প্রত্যাহার করা হোক। এভাবে ধাপে ধাপে লকডাউন খুলে দিলে একদিকে সংক্রমণের হার কমানো যাবে অন্যদিকে পরিস্থিতি সামাল দেওয়া সম্ভব হবে বলে তিনি মনে করেন ।

Post a Comment

0 Comments