Google Ads

আজকের তাজা 5 টি খবর

আজকের তাজা 5 টি খবর


1. বাংলায় লকডাউন বাড়ছে কি? কি সিদ্ধান্ত হল বৈঠকের পর? বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আগেই জানিয়েছেন যে 21 শে মে পর্যন্ত রাজ্যে করোনা লকডাউন এর প্রস্তুতি সরকার নিয়ে রেখেছে। ঐদিন প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের পর বাংলার মুখ্যমন্ত্রী ও আরো তিন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী যথাক্রমে তেলেঙ্গানা, পাঞ্জাব ও মহারাষ্ট্র এরা জানায় লকডাউন এর মেয়াদ আরো বাড়ালে ভালো হয় কিন্তু এর সঙ্গে কিছু কিছু ক্ষেত্রে বিশেষ ছাড়ের কথা ওরা উল্লেখ করেন। এবার দেখা যাক লকডাউন কোন মাস অব্দি এর মেয়াদ গড়ায় ।সম্ভবত জুন মাসের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত লকডাউন থাকার সম্ভাবনা আছে
2. লকডাউন এর মধ্যেই খুলে ফেলতে হবে রাজ্যের সকল ক্লিনিক ও নার্সিংহোম ।আজ এই বিষয় নিয়েই নতুন চিঠি দিল কেন্দ্র সরকার সব রাজ্যকে। সকল চিকিৎসক নার্স ও স্বাস্থ্য কর্মী ও সাফাই কর্মী ও অ্যাম্বুলেন্স এর উপর কোনরকম নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা যাবে না। ওই চিঠিতে স্বরাষ্ট্র সচিব অজয় ভাল্লা জানিয়েছেন মানুষের প্রাণ বাঁচাতে ও জনস্বাস্থ্যের চাহিদা মেটাতে সব স্বাস্থ্যকর্মীর মসৃণ গতিবিধি অত্যন্ত প্রয়োজন
3 .এক বছর আগের হিসাবে পাঠানো হচ্ছে বিল, জানালেন বিদ্যুৎমন্ত্রী শোভন দেব চট্টোপাধ্যায়, গতবছর মার্চ-এপ্রিল মাসে যে বিল এসেছিল সেই বিলই এবছর মার্চ-এপ্রিলের হিসেবে পাঠানো হচ্ছে ।মিটার রিডিং না নেওয়ায় কারো বিল বেশি আসতে পারে আবার কারো বি কম আসতে পারে, সে ক্ষেত্রে লকডাউন এরপরে সেটা অ্যাডজাস্ট করে দেওয়া হবে  বলে জানানবিদ্যুৎ মন্ত্রী, তিনি আরও জানান কোন কাস্টমার এর কাছ থেকে এক টাকাও বেশী নেওয়া হবে না।
4 .চীন থেকে ভারতে উৎপাদন সরিয়ে আনতে চায় "টেক জায়ান্ট অ্যাপল"। এই সংস্থা এখন তাদের এক-পঞ্চমাংশ উৎপাদন চীন থেকে সরিয়ে ভারতে আনার পরিকল্পনা করছে বিভিন্ন সূত্রের খবর। এই বিষয়ে অ্যাপেলের সিনিয়র এক্সিকিউটিভ এবং ভারত সরকারের উচ্চপদস্থ অফিসারদের মধ্যে গত কয়েকদিন আলোচনা হয়েছে। আইফোন নির্মাতা সংস্থাটি বর্তমানে এর স্থানীয় উৎপাদন বাড়িয়ে আয় করতে চাইছে। আর সেইজন্য অ্যাপেল চীনের বিকল্প হিসেবে উৎপাদনের স্থান খুঁজতে বসেছে। কারণ অ্যাপেল চাইছে স্থানীয় স্তরে আয় আগামী পাঁচ বছরে 40 বিলিয়ন ডলার করতে 
5. বাংলাদেশে রপ্তানি হচ্ছে পেঁয়াজ ও চাল। ট্রেনে করে পাঠানো হচ্ছে পেঁয়াজ এবং লকডাউন এর জেরে পশ্চিমবঙ্গের সীমান্ত বন্ধ থাকায় চট্টগ্রাম বন্দরের মাধ্যমে জাহাজে করে পাঠানো হচ্ছে চাল।

Post a Comment

0 Comments