Google Ads

২১ তারিখ থেকে এই নিয়মগুলি চালু হচ্ছে রাজ্যে

২১ তারিখ থেকে এই নিয়মগুলি চালু হচ্ছে রাজ্যে



নিজস্ব সংবাদদাতাঃ ১৮.০৫.২০২০ তারিখের নবান্নের সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন যে পশ্চিমবঙ্গের লকডাউন ২১ তারিখ পর্যন্ত ছিল, সেটি বাড়িয়ে করা হল ৩১ তারিখ পর্যন্ত। রেড, অরেঞ্জ ও গ্রীন জোনকে আরও ভাল ভাবে বিশ্লেষণ করার জন্য রেড ও গ্রীন জোনকে ৩ ভাগে ভাগ করা হয়েছে। অ্যাফেক্টেড জোন, বাফার জোন, ক্লিন জোন।
যে সমস্ত জিনিস বন্ধ থাকবে সেগুলি হলঃ
১. স্কুল, কলেজ, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ICDS ও শিক্ষা কেন্দ্র গুলি জুন মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহ পর্যন্ত বন্ধ থাকবে।
২. মেট্রো রেল পরিষেবা বন্ধ থাকবে।
৩. সমস্ত সিনেমা হল, সপিং মল, জিম, সুইমিং পুল, এন্টারটেইনমেন্ট পার্ক, বার, থিয়েটার, ওডিটোরিয়াম, অ্যাসেম্বলি হল ও স্পা বন্ধ থাকবে।
৪. সমস্ত সামাজিক, রাজনৈতিক, ধার্মিক সমাগম বন্ধ থাকবে।
কি কি নিয়ম মেনে চলতে হবেঃ
১. মাস্ক বাধ্যতামূলক পড়তেই হবে।
২. সোশ্যাল ডিস্টেন্সিং ২ মিটারের রাখতে হবে।
৩. সমস্ত পাবলিক প্লেস স্যানিটাইজ করতে হবে রেগুলার।
৪. ৬৫ বছরের উর্ধে ও ১০ বছরের নিচের বয়সের ও গর্ভবতী মহিলাদের মেডিক্যাল এমারজেন্সি ছাড়া বাইরে বের হওয়া যাবে না।
৫. পাবলিক প্লেসে থুতু ফেলা যাবে না।
৬. সন্ধ্যা ৭ টা থেকে সকাল ৭টা পর্যন্ত অকারণে বাড়ির বাইরে বের হওয়া যাবে না।
৭. পাবলিক প্লেসে মদ, গুটখা, পান, বিড়ি, তামাক খাওয়া যাবে না।
৮. কোথাও জেতে গেলে পারমিশন ও পাস নিতে হবে।
৯. বিয়ে ও শেষ যাত্রায় ১৫ জনের বেশি সমাগম করা যাবে না।
কন্টেইনমেন্ট জোনে কি কি মানতে হবেঃ
১. কোনো আর্থসামাজিক কাজকর্ম করা হবে না।
২. সবকিছু আয়ত্তের মধ্যে থাকতে হবে।
৩. প্রতিনিয়ত ছাফ করতে হবে।
৪. প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র বাড়িতে হোম ডেলিভারি পেয়ে যাবেন।
ক্লিন জোনে কি কি করা যাবেঃ
১. সমস্ত কারখানা খুলে যাবে, পাট মিল ও ইট ভাটাও।
২. ই-কমার্স ওয়েবসাইট তাদের যেকোনো মাল ডেলিভারি করতে পারবে।
৩. স্বাস্থ্য ব্যাবস্থা ঠিক থাকবে।
৪. কোনো দোকানে ৫ জনের বেশি ভীড় করা যাবে না।
৫. সেলুন, পার্লার খলা থাকবে পরিষ্কার পরিচ্ছনতা বজায় রেখে।
৬. হোটেল খোলা থাকবে।
৭. বিল্ডিং তৈরির কাজ করা যাবে ৫০% শ্রমিক নিয়ে।
৮. গৃহস্থলীর প্রয়োজনীয় দোকান যেমন ইলেকট্রিক, কামার, সুতার, প্লাম্বিং দোকান খোলা থাকবে।
৯. রেস্টুরেন্ট গুলি শুধুমাত্র হোম ডেলিভারি দিতে পারবে।
১০. সমস্ত ধরনের মাল, মালবাহী ট্রাক, কার্গো যাতায়াত করতে পারবে।
১১. রাজ্যের মধ্যে বাস (২০ জন) ও ট্যাক্সি (২ জন) যাতায়াত করতে পারবে।
১২. টিভি সিরিয়াল, ফিল্ম শুটিং চালু হবে।
১৩. পেট্রোল ও ডিজেল পাম্প, গ্যারেজ খোলা থাকবে।
১৪. এক রাজ্য থেকে অন্য রাজ্যে বাস চলবে যদি পাস থাকে।
১৫. প্রাইভেট অফিস গুলি ৫০% ম্যানপাওয়ার নিয়ে খুলতে পারবে।
১৬. স্পোর্টস কমপ্লেক্স খোলা থাকবে কিন্তু দর্শক আসতে পারবে না।
এছাড়াও বাফার জোনে ক্লিন জোন গুলির ২৫% অ্যাক্টিভিটি করতে পারবে।
Source: www.news365bangla.in

Post a Comment

0 Comments