Google Ads

অবশেষে চীনা app ব্যান্ড এবং তারফলে কিছু বেকারত্ব

অবশেষে চীনা app ব্যান্ড এবং তারফলে কিছু বেকারত্ব



কলকাতা, নিজস্ব সংবাদদাতা  :  চীনের সঙ্গে অতিরিক্ত উত্তেজনামূলক প্রেক্ষাপটে ভারত ব্যান্ড করেছে সর্বমোট ৫৯টি app। দেশের সর্বভৌমত্ত ও নিরাপত্তার রক্ষার ক্ষেত্র এই app গুলো ব্যান্ড করার অতি আবশ্যক ছিলো বলে জানিয়েছে কেন্দ্র। এই app গুলোর মধ্যে রয়েছে জনপ্রিয় জনপ্রিয় সব app। উল্লেখযোগ্য tiktok, share it, xender, uc borwser ইত্যাদি। দেশের ডেটা সিকিউরিটি এবং প্রাইভেসির জন্য অত্যন্ত বিপদজনক ছিল এই app গুলো। তাই এই app গুলোর ব্যান্ড এর প্রতি জোর দিয়েছে কেন্দ্র।

তবে প্রশ্ন হলো এই app গুলো ভারতের থেকে প্রতিবছর এতো বেশি পরিমানে অর্থ জেনারেট করে, তারমানে ভারতেও এই অর্থের কিছু অংশতো থেকেই। আর ভারতে এই app গুলো নিয়ন্ত্রণের জন্য ভারতে অনেক বেশি পরিমানের লোক কাজ করে চলেছে। তারাও তাঁদের কাজ হারিয়ে ফেলবে। আর তাঁদের অর্থ সংস্থান এর একটা উপায় কমে যাবে। তাছাড়া যেই app গুলো বাতিল করা হয়েছে তাঁদের বিকল্প ব্যবহারের জন্য অন্যান্য appও লঞ্চ করার একটা ব্যাপার রয়েছে। যেমন ইতিমধ্যেই tiktok এর বিকল্প হিসাব chingari app এর ব্যবহার শুরু হয়েছে। 

হিসাব অনুযায়ী app গুলোর ব্যান্ডের কাজের ফলে প্রায় কয়েক হাজার লোক তাঁদের কাজ হারিয়ে ফেলবে। আনুমানিক ১০-১২ হাজার লোক ওই সংস্থান গুলোর কাজের জড়িত। এই সংস্থানের বেশিভাগ  সংস্থায় ১০-১২ হাজার জন এবং ১০-১৫টি সংস্থায় ৪০০-৫০০ লোক কাজ করছিলেন। যার মধ্যে বড়ো বড়ো সংস্থান এর মধ্যে রয়েছে ভিগো ভিডিও, হালো, শেয়ার চ্যাট ইত্যাদি। এবং কিছু ছোটো খাটো সংস্থা। 

সীমান্তে উত্তেজনার জেরে কেন্দ্র থেকে এরূপ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এছাড়াও ভারতীয় নিরাপত্তা এজেন্সী বেশকিছুদিন আগেই এই app গুলোর বিপদজনক এর ব্যাপারে সতর্ক করেছিল। কেন্দ্রের কাছে এজেন্সি এর আবেদন ছিল জানো এই app গুলো মোবাইল থেকে সরিয়ে দেওয়া হোক অথবা ব্যান্ড করা হোক। বহু এন্ড্রোইড এবং iOS ব্যবহারকারীর ক্ষেত্র থেকেও অভিযোগ এসেছে তাঁদের তথ্য চুরি এর ব্যাপারে। সব মিলিয়ে কেন্দ্র এখন ব্যান্ড এর ব্যাপারেই মোহর বসিয়েছে।

Post a Comment

0 Comments