Google Ads

কলেজে ভর্তির পদ্ধতি নিয়ে দাবি শিক্ষকদের



কলকাতা, নিজস্ব সংবাদদাতা : করোনা এর কারণে রাজ্যে উচ্চ-মাধ্যমিক ছাত্র-ছাত্রীদের বাকি থাকা পরীক্ষা গুলো বাতিল বলে ঘোষণা হওয়ার সাথে সাথে আরও অন্যান্য কিছু স্তরের পরীক্ষাও বাতিল হয়েছে। তবে এখন প্রশ্ন উঠছে উচ্চ-মাধ্যমিক এর পরীক্ষা বাতিল এর উপর। অনেক ছাত্র-ছাত্রীর এই বাতিল এর খবর ভালো লাগলেও অনেকেই এই খবর এর জন্য সংকোচ এ পড়ে গেছে। পরীক্ষার বাতিল এর খবর শোনার পর থেকেই অনেক প্রশ্নই উঠছে কলেজে ভর্তি নিয়ে। কলেজে ভর্তি কি আগের মতো প্রক্রিয়াতেই চলবে নাকি তাতেও পরিবর্তন হবে বলে জানতে চাইছে ছাত্র-ছাত্রীরা। 

কিছু কিছু ছেলে-মেয়েদের প্রধান বিষয়গুলোই এখনও পরীক্ষা হয়নি। তাই তাদেরও যদি গড়ে তাঁদের হয়ে যাওয়া পরীক্ষার উপর ভিত্তি করে নম্বর দিয়ে দেওয়া হয়, তাহলে তারা তাঁদের আশানুরূপ নম্বর পাবেনা বলেই তাঁদের দাবি। আবার অসন্তুষ্টর ফলে পরীক্ষার জন্য আবেদন করা যাবে ঠিকই কথা কিন্তু কবে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে এবং কবে তারা পরীক্ষা দেবে সেই নিয়েও কিছু সমস্যায় রয়েছে মুষ্টিমেয় কিছু ছাত্র-ছাত্রী। 

পূর্ব মেদিনীপুর জেলার রোহিত নামে এক ছেলেরও এরকমই কিছুটা হয়েছে। তার ইচ্ছে ছিল ফিজিক্স নিয়ে অনার্স পড়ার। তাই শুরুর থেকে সে ফিজিক্স বিষয়টাকেই তার সঙ্গী করে নেয়। কিন্তূ দুর্ভাগ্যবসত তার ফিজিক্স এর পরীক্ষাটাই আর দেওয়া হয়ে উঠলোনা। পরীক্ষা বাতিল এর পর সে তার স্যারকে ফোন করে জানতে চাই যে যেভাবে নম্বর দেওয়া হবে বলে ঘোষনা করার হয়েছে। সেভাবে যদি নম্বর দেওয়া হয়তো তাহলে সে ইংরেজি বিষয়টার উপর ভিত্তি করে নম্বর পাবে, যা তার আশানুরূপ ফিজিক্স এর নম্বর এর সমান হবেনা। ফলে তার ফিজিক্স নিয়ে কোনো ভালো কলেজ এতেও আর ভর্তি হওয়া হবে কিনা। কারণ ভালো কলেজে নম্বর এর পার্সেন্টেজ এর উপর ভিত্তি করে ভর্তি নেওয়া হয়। আর গড়ে হয়তো সে সেই ভাবে নম্বর পাবেনা। 

এরকমই অনেক ছাত্র-ছাত্রীদেরও একই অবস্থা। তারাও একই ভাবে কেউ কেউ একাউন্টস কেউ কেউ জিওগ্রাফি কেউকেউ কেমিস্ট্রি এর টানা হাচড়ে পড়ে রয়েছে। তাঁদের সমস্যা দূরীকরণের জন্য ঠিক কিরকম সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে তা জানার দরকার রয়েছে। 

এইসমস্ত বিষয়গুলো ছাড়াও যে সমস্ত ছাত্র-ছাত্রীরা আগের বছরে দুটো বিষয় এ ফেল করেছে, তাঁদের মূল্যায়ন কিভাবে হবে সেই নিয়েও কোনো কথা বলা হয়নি। এরকমই কিছু বিষয় নিয়ে দ্রুত বিজ্ঞপ্তি জানাতে বিভিন্ন শিক্ষকরা দাবি করেছে উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ এর কাছে। বেশ কিছু ছেলে-মেয়েরা পরীক্ষা বাতিল এর কথাই খুশি হলেও যারা বড়ো কিছু করবে ভেবেছিল তাঁদের ক্ষতিই হয়েছে বলে দাবি অনেক শিক্ষক এর। 

Post a Comment

0 Comments