Google Ads

Work-from-home বাড়লো সময়সীমা, অর্থনীতিক পরিস্থিতি

Work-from-home বাড়লো সময়সীমা, অর্থনীতিক পরিস্থিতি

কলকাতা, নিজস্ব সংবাদদাতা: করোনা সংক্রমনের জেরে দেশে প্রায় সমস্ত সেক্টরেই ক্ষতি হয়েছে ব্যবসা-বাণিজ্যের দিক থেকে। তারমধ্যে টেলিকম কম্পানীগুলো ব্যাতিক্রম নয়। দেশের প্রায় বেশিরভাগ সংস্থাগুলি work-from-home এর মাধ্যমে কাজ করে চলছে। কেন্দ্র সরকার দ্বারা জুলাই মাস পর্যন্ত work-from-home এর জন্য অর্জি জারি করা হয়েছিল।  এখনো যা পরিস্থিতি এইভাবে কাজ চালিয়ে যেতে হবে সমস্ত সংস্থাগুলিকে। করোনা সংক্রমণ এখনও মিটেনি বললেই চলে।

 সরকার চারিদিকের পরিস্থিতি লক্ষ্য রেখে এবং এই টেলিকম কোম্পানী গুলির সুবিধার্থে 31 শে ডিসেম্বর পর্যন্ত work-from-home করার ছাড়পত্র মঞ্জুর করে। বিভিন্ন টেলিকম কোম্পানির তথ্যপ্রযুক্তি সেক্টর গুলিতে এর প্রভাব ভালই পড়েছে।  জানা যাচ্ছে দেশের প্রায় 90% লোকেরা work-from-home হিসেবে কাজ করছেন।

সূত্রের খবর অনুযায়ী জানা যাচ্ছে অনেক টেলিকম সংস্থা 31 ডিসেম্বরের পরেও work-from-home হিসেবেই কাজ করাবে।  এক্ষেত্রে প্রয়োজন হবে না অফিসের জায়গা, তাছাড়া ট্রান্সপোর্ট ভাতা ও ইত্যাদির জন্য কত খরচও অনেকটাই কমবে এবং কাজের ক্ষেত্রে সুবিধা হবে।

করোনা জেরে দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা একেবারেই নড়ে গেছে বলে জানাচ্ছে অর্থমন্ত্রক। বাজারে করোনা প্রতিষেধক নেই।  ফলে বাজার সৃষ্টি হয়েছে অস্থিতিশীলতার। করোনা পরিস্থিতি ঠিক হওয়ার পর কিভাবে আমরা অর্থনীতিক অবস্থা ঠিক করতে পারব, তা নির্ভর করবে বর্তমানে নেওয়া বেশকিছু সিদ্ধান্তের ওপর।  প্রতিনিয়তই সরকার এবং রিজার্ভ ব্যাঙ্ক স্বল্পমেয়াদী ও দীর্ঘমেয়াদী কিছু না কিছু সিদ্ধান্ত নিয়েই চলেছে।

 সম্প্রতি এক রিপোর্ট অনুযায়ী বলা হয়েছে, অর্থনৈতিক পরিকাঠামো কিছু পরিবর্তন হয়েছে যা জনকল্যাণে সুবিধা আনবে। এর ফলে দেশের অর্থনীতিতে কিছু সুযোগের সৃষ্টি হবে। দেশের অর্থনীতি চাঙ্গা করতে পুষ্ট হবে।

Post a Comment

0 Comments