Google Ads

বেসরকারি স্কুলে 15 তারিখের মধ্যে মিটিয়ে দিতে হবে বকেয়া অর্থর 80%

 বেসরকারি স্কুলে 15 তারিখের মধ্যে মিটিয়ে দিতে হবে বকেয়া অর্থর 80%

কলকাতা, নিজস্ব সংবাদদাতা: চার-সাড়ে চার মাসের মাথায় লকডাউন উঠে পড়েছে।  এখনো পর্যন্ত স্কুল-কলেজ খোলার সিদ্ধান্ত সেইরূপ ভাবে নেওয়া হয়নি। সরকারি বেসরকারি উভয় স্কুল-কলেজ বন্ধ রয়েছে।  বাড়ি থেকেই পড়াশোনা চালু আছে ছাত্র-ছাত্রীদের।  তবে এই অবস্থায় অনলাইনে পড়াশোনা করে এগিয়ে যাচ্ছে বেশ কিছু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।  বেশিরভাগ বেসরকারি স্কুলগুলোর ক্ষেত্রে এই বৈশিষ্ট্যটি পরিলক্ষিত করা গেছে।


তবে লন্ডনের কারণে স্কুল বন্ধ থাকলেও থেমে নেই বেতনের প্রক্রিয়া।  বিশেষত বেসরকারি স্কুলের ক্ষেত্রে প্রায় প্রতি মাসেই বেতনের বোঝা চাপিয়ে অভিবাবক-অবিভাবকদের ঘাড়ে। সেই কারণেই বেশ কিছু অভিভাবক কলকাতা হাই কোর্ট এর  কাছে আবেদন করেছিল। যাতে বেতনের বোঝা কিছুটা কমানো যায় এবং লকডাউন পর্যন্ত ছাড় দেওয়া হয় তাদের বাচ্চাদের স্কুলের বেতন।


কলকাতার বড় বড় প্রায় 112 টি বেসরকারি স্কুলের  বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছিল যে তারা নাকি টিউশন ফি ছাড়াও আরো অন্যান্য বাড়তি ফি আদায় করছে অবিভাবক অবিভাবিকাদের কাছ থেকে।


তবে আগের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী 15 ই আগস্ট এর আগে বেসরকারি স্কুল গুলির 80% বকেয়া অর্থ মিটিয়ে দিতে হবে অভিভাবকদের, সেই সিদ্ধান্তেই অটল রইল কলকাতা হাইকোর্ট।সোমবার দিন অভিভাবকদের পক্ষ থেকে বকেয়া অর্থ মেটানোর জন্য কিছুদিন সময় আবেদন করা হলে সেই দিকে কোনরুপ প্রশ্রয় দেয়নি আদালত।  তবে এই মামলা সম্পর্কিত কোনো রূপ নথি যাতে ফেসবুক এর মত সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্মে দেওয়া যাবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে আদালত।


তবে আদালতের দ্বারা বেসরকারি স্কুলগুলোর কে আরো একবার সতর্ক করে দেওয়া হয় যে, বকেয়া অর্থ না দেওয়ার কারণে কোন ছাত্র-ছাত্রী কে অনলাইন ক্লাস বা পরীক্ষার ক্ষেত্রে বঞ্চিত করা যাবে না। তবে এই নয় যে বকেয়া অর্থ মাফ হয়ে যাবে, বকেয়া অর্থ এর 80% মিটিয়ে দিতে হবে পড়ুয়াদের।


Post a Comment

0 Comments