Google Ads

জারি হল FSSAI এর মাধ্যমে নয়া নির্দেশিকা কিভাবে ঘর ও রান্না ঘর ভাইরাস সংক্রমণ দ্বারা মুক্ত রাখবেন

 

জারি হল FSSAI এর মাধ্যমে নয়া নির্দেশিকা কিভাবে ঘর ও রান্না ঘর ভাইরাস সংক্রমণ দ্বারা মুক্ত রাখবেন

কলকাতা, নিজস্ব সংবাদদাতা: করোনা পরিস্থিতি বিশ্বজুড়ে অনেকটা ঠান্ডা হয়েছে তবুও এখনও পুরোপুরি সংকট মিটে যায়নি। রাশিয়া করোনাভাইরাস এর প্রথম ভ্যাকসিন বিশ্বজুড়ে রেজিস্টার করেছে। কিন্তু তা এখনও জনসাধারনের ঘরে ঘরে পৌঁছে যায়নি। তাই, ততদিন পর্যন্ত করোনা এড়িয়ে যাওয়ার জন্য আমাদেরকে নিজেদের সর্তকতা অবলম্বন করে যেতে হবে।  এক্ষেত্রে সামাজিক দূরত্ব এবং স্যানিটাইজার ব্যবহার করা যতটা গুরুত্বপূর্ণ ঠিক ততটাই অন্যান্য ক্ষেত্রে লক্ষ্য করাও  গুরুত্বপূর্ণ।


আমরা সাধারণত মাস্ক এবং সামাজিক দূরত্ব ক্ষেত্রে সর্তকতা অবলম্বন করি কিন্তু রান্নাঘর বা অন্য জায়গা গুলো পরিষ্কার ক্ষেত্রে সে ভাবে মনোযোগ দিই না। এদিন এফএসএসএআই এর দ্বারা বেশ কিছু নির্দেশাবলী টুইটারের মাধ্যমে দেওয়া হয়েছে যেগুলো অবলম্বনের মাধ্যমে ঘর এবং রান্নাঘর পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখা যাবে। এই সমস্ত নির্দেশাবলী করে অবলম্বনের মাধ্যমে ভাইরাস সংক্রমণ থেকে দূরে থাকা সম্ভব নির্দেশাবলী গুলি হল,


#1) রান্নাঘরের স্ন্যাব এবং ওভেন জল এবং ডিটারজেন্ট দিয়ে প্রতিদিন পরিষ্কার করা উচিত।

#2) রান্নাঘরের পরে রান্নাঘরের সিঙ্ক এবং ওভেন পরিষ্কারের পর তা জীবাণুমুক্ত করা উচিত।

#3) খাবার খাওয়ার পরে প্রযােজনীয় বাসন বা জিনিসপত্র সাবান বা ডিটারজেন্ট এবং জল দিয়ে ধুয়ে নেওয়া উচিত।

#4) রােগ নিযুন্ত্রণ ও প্রতিরােধে কেন্দ্রের মতে বাড়ি বা রান্নাঘর পরিষ্কার ও জীবাণুনাশক করার সময় গ্লাভস পরা উচিত।

#5) পরিষ্কারের কাজ শেষ করার পরে ২০ মিনিটের জন্য সাবান এবং জল দিয়ে আপনার হাত ধুয়ে ফেলুন।

#6) এগুলি ছাড়াও কেউ যদি বাড়িতে কোয়ারান্টাইন করে থাকেন এবং যে জায়গার সংস্পর্শে তারা আসেন সে স্থানটি পরিষ্কার করে জীবাণুমুক্ত করা উচিত।

#7) প্রতিদিন কোযারান্টাইনে থাকা ঘর পরিষ্কার করার জন্য এক শতাংশ সােডিয়াম হাইপােক্লোরাইটযুক্ত জীবাণুনাশক ব্যবহার করা উচিত।

#8) স্বাস্থ্য মন্ত্রকের গাইডলাইন অনুসারে টযুলেটের ফ্লোর ব্লিচিং বা ফেনলিক জীবাণুনাশক দ্বারা পরিষ্কার এবং জীবাণুমুক্ত করা উচিত।


Post a Comment

0 Comments