Google Ads

এবার বাতিল করা হলো লাইট ভার্সন চীনা অ্যাপ গুলোও

এবার বাতিল করা হলো লাইট ভার্সন চীনা অ্যাপ গুলোও
কলকাতা, নিজস্ব সংবাদদাতা: চীনের সঙ্গে ভারতের দ্বন্দ্ব  এখন প্রায়ই লেগে থাকে। গত 15 ই জুন চীন-ভারত সীমান্তে এক সংঘর্ষে শহীদ হয়েছিল ভারতীয় 20 জন জাওয়ান। তারপর থেকেই চিনা দ্রব্যের বয়কট শুরু হয় দেশের মধ্যে। এই ঘটনার ফলে বিরুপ প্রভাব পড়েছিল দেশবাসীর উপর।  যা এখনো পর্যন্ত নিভে যায়নি।  তৎকালীন সময়ের মধ্যেই সারাদেশে চীনা দ্রব্যের বয়কট শুরু হয়ে গিয়েছিল।  বিশেষত্ব বিভিন্ন অ্যাপ এর ক্ষেত্রে এটি খুব বেশি কার্যকর হয়। ইতিমধ্যেই প্লে স্টোর ও অ্যাপেল স্টোর এর মধ্য থেকে সরিয়ে দেওয়া হয় এই লাইট গুলোরও অস্তিত্ব।

তৎকালীন সময়ে ভারত সরকার প্রায় 59 টি চিনা অ্যাপ বাতিল করে দিয়েছিল।  যা চীনের কাছে অনেকটাই ক্ষতির ব্যাপার।  তবে তখন শুধুমাত্র চীনের মূল অ্যাপ গুলো বাতিল করা হয়েছিল যেমন টিকটক, uc-browser, জেনডার, শেয়ারইট, হ্যালো ইত্যাদি অ্যাপ।  কিন্তু তারপরেও চীন পুরোপুরি হাল ছেড়ে দেয়নি। চীন তার এই অ্যাপগুলির লাইট ভার্সন দিয়ে ভারতের বাজার ধরে রাখার চেষ্টা করছিল। যেমন শেয়ারইট লাইট, ভিগো লাইট ইত্যাদি অ্যাপস।

কিন্তু এবার কেন্দ্র দ্বারা এর লাইট ভার্সন গুলিও উধাও করে দেওয়া হল। কেন্দ্র বুঝিয়ে দিয়েছে তারা তার অবস্থানে অনড় রয়েছে। গত মঙ্গলবার এই চিনা অ্যাপ গুলিকে লিখিতভাবে সতর্ক করে দিয়েছিল বিদ্যুৎতিন ও প্রযুক্তি মন্ত্রক। সেই সতর্কবার্তায় জানিয়ে দেওয়া হয়, বাতিল করা অ্যাপগুলি প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ যেকোনভাবেই ইউজারদের ব্যবহার করার উপযোগী করা হোক না কেন তা অপরাধ বলে গণ্য করা হবে এর বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দেশের সার্বভৌমত্ব নাগরিকদের সুরক্ষা প্রদানের জন্য এইরূপ ব্যবস্থা বলে জানিয়ে দিয়ে দেয় মোদি সরকার। যেভাবেই হোক না কেন মোদি সরকারের এই সিদ্ধান্তে চীন আর্থিক বিকলে পড়েছে অনেকটাই। বিভিন্ন অ্যাপগুলি লাইট ভার্সন উদ্ধার করে দেওয়ার পর হয়তো চীনের কাছে কোন বিকল্প ব্যবহার নেই বলেই জানা যাচ্ছে।

Post a Comment

0 Comments