Google Ads

পানীয় জলের অপচয় !! -- হতে পারে এক লক্ষ টাকা জরিমানা বা পাঁচ বছরের কারাদণ্ড!!

 

পানীয় জলের অপচয় !!  -- হতে পারে এক লক্ষ টাকা জরিমানা বা পাঁচ বছরের কারাদণ্ড!!

কলকাতা, নিজস্ব সংবাদদাতা: সারা বিশ্ব জুড়ে দিন দিন ধরে পানীয় জলের সংকট বৃদ্ধি পেয়েছে। এর মূখ্য কারণ হিসেবে বিবেচিত হয় ভূগর্ভস্থ জলের দারুণভাবে অপচয়।  বেশিরভাগ মানুষই ইচ্ছাগত বা অনিচ্ছাগত কারণে বিভিন্ন উপায় জল অপচয় কাজ করে থাকে, যা ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে এক সংকটের দিকে নিয়ে যেতে চলেছে। বর্তমানে সারা বিশ্বজুড়ে পানীয় জলের সংকট একটি বিবেচিত সংকট বলে জানা যাচ্ছে।


জলের অপচয় এড়াতে ইতিমধ্যেই কেন্দ্র একটি কঠোর পদক্ষেপ নিয়েছে। এতদিন পর্যন্ত পানীয় জলের অপচয় করলে সেই ভাবে কোন কঠোর বিধান ছিল না ভারতে কিন্তু এবার কেন্দ্র-রাজ্য জারি করা হয়েছে কঠোর বিধান। মূলত জল অপচয় নিয়ন্ত্রণ ও বন্ধ করতেই এরূপ ব্যবস্থা। এর আগে কখনো ভারতে এইরূপ কঠোর আইন জারি করা হয়নি এ বিষয়ে। এবার থেকে কোন ব্যাক্তি বা সংস্থা পানীয় জল অপচয় করলে তা দণ্ডনীয় অপরাধ বলে গণ্য করা হবে এবং পর্যাপ্ত শাস্তি উপভোগ করতে হবে।


জল অপচয় নিয়ন্ত্রণ বন্ধ করতে নতুন বিধান কেন্দ্রের। সেন্ট্রাল গ্রাউন্ড ওয়াটার অথরিটি এর নতুন নির্দেশ অনুযায়ী যদি ব্যক্তিগত সংস্থান পানীয় জলের অপব্যবহার অপচয় করে থাকে, তাহলে তার হতে পারে 1 লক্ষ টাকা জরিমানা বা পাঁচ বছরের কারাদণ্ড। এ ব্যবস্থা সুষ্ঠুভাবে নিয়ন্ত্রণের জন্য, রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল গুলি তে জল সরবরাহ নেটওয়ার্ক জল বোর্ড, জলনিগম, জল কর্মবিভাগ, পৌরসভা, উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ, পঞ্চায়েত এর উদ্দেশ্যে বিশেষ পদ্ধতি তৈরি করার কথা বলা কেন্দ্রের দ্বারা। এ বিষয়ে কেউ যদি কোন নিয়ম অমান্য করে সে ক্ষেত্রে কঠোর ব্যবস্থা জারি করতে বলা হয়েছে।


রাজেন্দ্র ত্যাগী এবং একটি NGO জল অপচয় রােধ নিষিদ্ধ করার আবেদন করেছিল। এই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে প্রথমবারের মতাে জাতীয় সবুজ ট্রাইব্যুনাল কেন্দ্রীয় জলবিদ্যুৎ মন্ত্রকের অধীনে কেন্দ্রীয় ভূগর্ভস্থ জল কর্তৃপক্ষ (সিজিডাব্লুএ) 15 ই অক্টোবর, 2020 এর এনজিটির আদেশ মেনে এই আদেশ জারি করেছে। ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কথা মাথায় রেখে এবং বর্তমানে জলের অপচয় কমানোর জন্য মূলত এই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। এই ব্যবস্থায় সকল জনগণের সহযোগিতা অত্যন্ত প্রয়োজনীয়।


Post a Comment

0 Comments